কুলাউড়ায় কলেজ ছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার

Sharing is caring!

কুলাউড়া উপজেলায় গলায় ফাঁস দেওয়া অবস্থায় সুমাইয়া আক্তার (১৭) নামে একাদশ শ্রেণির এক কলেজ ছাত্রীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সুমাইয়া উপজেলার পৃথিমপাশা ইউনিয়নের ভাটগাঁও গ্রামের আলা উদ্দিনের মেয়ে।

খবর পেয়ে কুলাউড়া থানার উপ পরিদর্শক (এস আই) হাবিবুর রহমান সোমবার (২৪ মে) সন্ধ্যায় ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মৌলভীবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছেন।
উপ পরিদর্শক (এস আই) হাবিবুর রহমান মোবাইলে বলেন, সোমবার দুপুরে উপজেলার ভাটগাঁও গ্রামের আলা উদ্দিনের কলেজ পড়–য়া বড় মেয়ে সুমাইয়া আক্তার পরিবারের সবার অজান্তে ঘরের ভিতর আড়ার মধ্যে ওড়না পেচিয়ে গলায় ফাঁস দেন। অনেকক্ষণ ঘরের ভিতর থেকে কোন সাড়াশব্দ না পেয়ে তার মা রেজিয়া বেগম ও পরিবারের সবাই মিলে দরজা ভেঙে দেখতে পান গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় সুম্ইায়ার মরদেহ।

পরে বিষয়টি থানা পুলিশকে জানালে আমি ঘটনাস্থলে গিয়ে সুমাইয়ার মরদেহ সুরতহাল করেছি। সুরতহালে গলায় ওড়না পেচানোর দাগ ছাড়া আর কোন আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি।
হাবিবুর রহমান সুমাইয়ার মা রেজিয়া বেগমের বরাত দিয়ে বলেন, অভিমানে হয়তো সে আত্মহত্যা করেছে। সুমাইয়ার বড় এক ভাই ও ছোট এক বোন রয়েছে।!

১৭৫ Views

Sharing is caring!

৫ thoughts on “কুলাউড়ায় কলেজ ছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার

Comments are closed.