কুলাউড়ার মুজিবপাড়ায় ঘরে আগুন : ইউপি সদস্যকে আসামী করে মামলা

Sharing is caring!

বিশেষ প্রতিনিধি ::

কুলাউড়া উপজেলার রাউৎগাঁও ইউনিয়নে মুজিববর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে দেয়া একটি ঘরে পরিকল্পিতভাবে আগুন লাগিয়ে দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় স্থানীয় ওয়ার্ডের মেম্বারসহ দুজনকে আসামী করে থানায় মামলা দায়ের করেছেন ইউনিয়ন ভূমি সহকারি কর্মকর্তা মো. ফজলুল করিম চৌধুরী।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, উপজেলায় ১১০টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে পূনর্বাসনের অংশ হিসেবে রাউৎগাঁও ইউনিয়নের মুকুন্দপুরে ১২টি ঘর নির্মাণ করা হয়। এক সাথে নির্মিত এ ১২টি ঘরের স্থানের নাম দেওয়া হয় মুজিবপাড়া। উপজেলার তালিকা অনুযায়ী সেখান থেকে একটি ঘর বরাদ্ধ পান ভূমি ও গৃহহীন খোরশেদা বেগম। কিন্তু রাউৎগাঁও ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের মেম্বার নোমান আহমদ ওই ঘরটি বরাদ্দ দেন খাতেবুন বিবি নামক অপর এক মহিলাকে। এসুবাদে খাতেবুন গৃহটি তার দাবি করে খোরশেদা বেগমকে ঘরে উঠতে নিষেধ করেন।

এদিকে গত ১০ ফেব্রুয়ারি রাতে মেম্বার নোমান আহমদ ঘরে উঠায় খোরশেদা বেগমকে দেখে নেওয়ার হুমকি দেন। ১১ ফেব্রুয়ারি ভোর রাতে খাতেবুন বিবিকে সাথে নিয়ে মেম্বার নোমান আহমদ মুজিবপাড়ায় এসে ওই ঘরের দরজা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে কেরোসিন ঢেলে আগুন লাগিয়ে পালিয়ে যান। এসময় আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। ততক্ষনে ঘরে থাকা খোরশেদা বেগমের আসবাবপত্র পুড়ে ছারখার হয়ে যায়।

ঘটনার খবর পেয়ে কুলাউড়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) আমিনুল ইসলাম সরেজমিন ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেন। এঘটনায় ইউপি মেম্বার নোমান আহমদ ও খাতেবুন বিবিসহ অজ্ঞাত আসামী করে কুলাউড়া থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে মেম্বার নোমান আহমদের মুঠোফোনে (০১৭১৬-৩১৯৯১০) একাধিকবার ফোন করেও তা বন্ধ পাওয়া যায়।

কুলাউড়া থানার অফিসার ইনচার্জ বিনয় ভূষণ রায় ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আসামীদের গ্রেফতারে পুলিশী অভিযান চলছে।#

৬৬ Views

Sharing is caring!

error: Content is protected !!