২০২০ সালে প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপ খেলবে ভারত!

Sharing is caring!

কুলাউড়া এক্সপ্রেসঃ বিশ্বকাপ ক্রিকেটে ভারতের অভিষেক! আঁতকে ওঠার মতোই কথা। যাদের ওয়ানডে বিশ্বকাপে ২ এবং টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে আছে ১টি শিরোপা- তাদের আবার কিসের অভিষেক? সেই ১৯৭৫ সালে বিশ্বকাপের প্রথম আসর থেকেই তো খেলছে ভারত। এখন আবার নতুন করে প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপ খেলার কী হলো?

উত্তর হলো, এটি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বিশ্বকাপ নয়। বরং পঞ্চাশোর্ধ্ব ক্রিকেটারদের নিয়ে খেলা বিশ্বকাপ। যার প্রথম আসর হয়ে গেছে গতবছরের নভেম্বরে। আগামী বছরের মার্চে দক্ষিণ আফ্রিকার কেপ টাউনে হবে এই বিশ্বকাপের দ্বিতীয় আসর। সেখানে প্রথমবারের মতো খেলবে ভারত।

ADVERTISEMENT
একই আসরে অভিষেক হতে যাচ্ছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ, নামিবিয়া ও জিম্বাবুয়ের। আগামী বছরের ১১ থেকে ২৪ মার্চের ভেতরে হওয়া এ টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণকারী দলগুলো হলো ইংল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা, ওয়েলস, ভারত, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, কানাডা, শ্রীলঙ্কা, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, নামিবিয়া, জিম্বাবুয়ে ও পাকিস্তান।

দুই গ্রুপে ভাগ হয়ে টুর্নামেন্টের প্রথম রাউন্ড খেলবে দলগুলো। যেখানে ‘এ’ গ্রুপে থাকছে ভারত, ইংল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা, ওয়েলস, নামিবিয়া ও পাকিস্তান। আর বি গ্রুপের সদস্যরা হলো অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, কানাডা, শ্রীলঙ্কা, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও জিম্বাবুয়ে।

ভারতীয় দলকে নেতৃত্ব দেবেন শৈলেন্দ্র সিং৷ প্রথমবারের মতো খেলতে যাওয়া এ টুর্নামেন্টের ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘আমি মুম্বাই জিমখানায় ১৫ বছর অধিনায়কত্ব করেছি। ইংল্যান্ড ও স্কটল্যান্ডে আমি কাউন্টি ক্রিকেট খেলেছি। বিশ্বকাপে ভারতকে নেতৃত্ব দেব ভেবে উচ্ছ্বসিত। দেশকে বিশ্বকাপ দিয়ে গর্বিত করতে চাই।’

২০১৮ সালের নভেম্বরে অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতে আট দলের অংশগ্রহণে হয়েছিল পঞ্চাশোর্ধ্ব বিশ্বকাপের প্রথম আসর। সেবার অংশ নিয়েছিল অস্ট্রেলিয়া, পাকিস্তান, ইংল্যান্ড, ওয়েলস, দক্ষিণ আফ্রিকা, নিউজিল্যান্ড, কানাডা ও শ্রীলঙ্কা। প্রায় তিন সপ্তাহ ধরে চলা বিশ্বকাপের ফাইনালে পাকিস্তানকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় অস্ট্রেলিয়া।

গোলাপি বলের এই টুর্নামেন্টে গত বছর ৪৫ ওভারের ম্যাচ হলেও ২০২০ বিশ্বকাপে ম্যাচ হবে ৫০ ওভারের।

Sharing is caring!